মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রচ্ছদ বিকল্পধারায় যোগ দিলেন শমসের মবিনসহ বিএনপির তিন নেতা

বিকল্পধারায় যোগ দিলেন শমসের মবিনসহ বিএনপির তিন নেতা


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ২৬, ২০১৮ , ৭:০০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রচ্ছদ


বিকল্পধারায় যোগ দিলেন বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরীসহ তিন শীর্ষ নেতা। শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বাড্ডায় এক অনুষ্ঠানে বি.চৌধুরীর হাতে ফুল দিয়ে দলে যোগ দেন তারা। শমসের মবিন চৌধুরী ছাড়া ছাত্রদলের প্রথম নির্বাচিত সভাপতি গোলাম সারোয়ার, সাবেক মন্ত্রী (এরশাদ সরকার) নাজিম উদ্দিন অাল অাজাদও যোগ দিয়েছেন বিকল্পধারায়।

এদিন এর আগে বিকল্পধারার অঙ্গ সংগঠন বিকল্প যুবধারার বিশেষ কাউন্সিলে যোগ দেন তারা। পরে বিকল্পধারার যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী তাদের অামন্ত্রণ জানিয়ে মঞ্চে নিয়ে আসেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- সদ্য ২০ দলীয় জোট ত্যাগ করা বাংলাদেশ নাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি ও মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া, এনডিপির চেয়ারম্যান খন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজা এবং শুক্রবার ২০ দল ছেড়ে অাসা লেবার পার্টির একাংশের মহাসচিব হামদুল্লাহ মেহেদী।

অনুষ্ঠানে হামদুল্লাহ মেহেদীর বিএনপি জোট ছেড়ে অাসার বিষয়টি উল্লেখ করে মাহী বি. চৌধুরী বলেন, ‘স্বাধীনতাবিরোধীদের ২০ দলীয় জোট ছেড়ে এসেছেন লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ মেহেদী। তিনি বলেন, ‘অাসুন বাংলাদেশকে দুঃশাসনের হাত থেকে রক্ষা করি। বি.চৌধুরীর নেতৃত্বে নানন্দিক ধারার রাজনীতি শুরু করি।’

২০১৫ সালের অক্টোবরে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়ান শমসের মবিন চৌধুরী। তখন তিনি বলেছিলেন, শুধু ভাইস চেয়ারম্যানের পদ নয়, রাজনীতি থেকেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সঙ্গে বিএনপির পক্ষ থেকে যোগাযোগ রক্ষা তিনি।

২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বে সরকার ক্ষমতাসীন হবার পর সাবেক কূটনীতিক শমসের মবিন চৌধুরী পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের পর তিনি বিএনপিতে যোগ দেন। বিএনপিতে যোগ দেবার পরে তিনি দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন। কিন্তু রাজনীতি থেকে তার এই আকস্মিক অবসর দলের অনেককেই খানিকটা বিস্মিত করে।

শমসের মবিন চৌধুরী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে বীর বিক্রম খেতাব প্রদান করে।

Comments

comments

Close