বুধবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয়, প্রচ্ছদ নির্বাচনের আগে সন্ত্রাসী-মাদকসেবীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ ইসির

নির্বাচনের আগে সন্ত্রাসী-মাদকসেবীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ ইসির


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ৩১, ২০১৮ , ৬:১৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: জাতীয়,প্রচ্ছদ


সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সন্ত্রাসী, মাদকসেবীদের গ্রেপ্তারের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বুধবার সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে নির্দেশনার বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, সন্ত্রাসী-মাদকসেবী যারা নির্বাচনকে ভণ্ডুল করতে পারে তাদের গ্রেফতার করতে।

কবে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, এ বিষয়ে কোনো আলোচনা হয় নাই। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বৈঠক করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করা হবে। এক্ষেত্রে নির্বাচন পূর্ব সময়ে আচরণ বিধি প্রতিপালনের জন্য ব্যাপক পরিমাণ ম্যাজিস্ট্রেট প্রয়োজন। তাই জনপ্রশাসনকে পর্যাপ্ত সংখ্যক ম্যাজিস্টেট নিয়োগের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

এছাড়া তফসিল ঘোষণার সাতদিনের মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা সামগ্রী সরিয়ে ফেলতে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম হাতে নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

সচিব বলেন, আগে নির্বাচনে প্রার্থী হতে হলে ঋণখেলাপিদের মনোনয়নপত্র জমাদানের সাতদিন পূর্বে ঋণ পরিশোধের বিধান ছিল। এখন থেকে ঋণ পরিশোধ করেই প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন।

প্রার্থীদের আয়কর রিটার্ন দেওয়ার বিষয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আগে সকল প্রার্থীকে আয়কর রিটার্ন দেওয়া বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু এখন বাধ্যতামূলক নয়। যাদের ট্যাক্স আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার (টিআইএন) আছে, কেবল তারাই রিটার্ন জমা দেবে। আর যাদের নেই, তাদের দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে একটি প্রস্তাবনা এসেছিল-যে দেশের অনেক কৃষকও নির্বাচনে অংশ নেন। তারা আয়করের বাইরে রয়েছে। তাই নির্বাচনে সকলের সুযোগ নিশ্চিত করতে আয়কর রিটার্ন দেওয়ার বিষয়টি শিথিল করা হয়েছে।

অন্যদিকে শিক্ষামন্ত্রণালয়কে বলা হয়েছে, ১০ ডিসেম্বরের মধ্যেই যেন তাদের প্রতিষ্ঠানগুলো ফাঁকা করে দেয়। আবার বিদেশি পর্যবেক্ষদের নির্বাচন পর্যবেক্ষণের সুবিধার্থে ভিসা প্রক্রিয়া শিথিল করার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বলা হয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, জানুয়ারিতে তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রিতে নেমে আসবে। আবার ডিসেম্বরেও শীত থাকবে। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়েই আমরা ভোটের তারিখ দেব।

Comments

comments

Close