মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, খুলনা বিভাগ, জাতীয়, প্রচ্ছদ, সাহিত্য সাতক্ষীরায় সদর এমপি কে জড়িয়ে মিথ্যা বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

সাতক্ষীরায় সদর এমপি কে জড়িয়ে মিথ্যা বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ


পোস্ট করেছেন: বার্তা বিভাগ ৪ | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ২, ২০১৯ , ১:৩৮ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,খুলনা বিভাগ,জাতীয়,প্রচ্ছদ,সাহিত্য


এস এম পলাশ সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি :

গত শুক্রবার ৩১মে কথিত সাংবাদিকরা সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবিকে জড়িয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ঔদ্ধত্যমূলক বক্তব্য দেওয়ায় সাতক্ষীরায় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (০১ জুন) সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আপামর জনসাধারণের আয়োজনে সাতক্ষীরা শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক হতে বিশাল ব্যানার সম্বলিত একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে সাতক্ষীরা নিউ মার্কেট মোড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

হাজার হাজার মানুষের সমন্বয়ে বিক্ষোভ মিছিলে সাতক্ষীরার সকল অপকর্মের হোতা চাঁদাবাজ আবু আহমেদ’র দুই গালে জুতা মারো দুই গালে এবং রাজাকার পুত্র আবুল কালাম আজাদের দুই গালে জুতা মারো দুই গালে ধ্বনিতে সাতক্ষীরা শহর প্রকম্পিত করে তোলে।

পরে জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক শেখ নুরুল হকের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ছাইফুল করিম সাবু, জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য অতিরিক্ত পিপি এ্যাড. আব্দুল লতিফ, ডা. মুনছুর আহমেদ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আবু সায়ীদ, জেলা যুবলীগের আহবায়ক মো. আব্দুল মান্নান, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদিকা জ্যোৎস্না আরা, আগরদাঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হাবিবুর রহমান হবি, আলিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মশিউর রহমান (ময়ুর ডাক্তার) পৌর যুবলীগের সভাপতি মো. মনোয়ার হোসেন অনু প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন,‘সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের দু’গ্রুপের আভ্যন্তরীন কোন্দল। আপনারা নিজেরা মিমাংসা করুন। প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক আবু আহমেদকে বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি বিভিন্ন অভিযোগ এনে সদস্য পদ বাতিল করেছে।

তার স্বার্থে ঘা পড়েছে বলেই এমপি রবির বিরুদ্ধে সাংবাদিকদের ক্ষেপিয়ে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন ও বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে। কেন একজন জননেতা সকলের প্রিয় মানুষ বীর মুক্তিযোদ্ধাকে জড়িয়ে ঔদ্ধত্যমূলক বক্তব্য দেওয়া হল এর জবাব চায় সাতক্ষীরাবাসী।

সাতক্ষীরার সকল অবৈধ ব্যবসা থেকে শুরু করে মাদক, চাঁদাবাজি, জমি দখলসহ সকল অপকর্মের হোতা এই আবু আহমেদ কিভাবে প্রেসক্লাবের মত একটি প্রতিষ্ঠানে নেতৃত্ব দেয় জাতি জানতে চাই এবং এর সাথে সহযোগী তালিকাভূক্ত জেলাখাটা রাজাকার পুত্র আবুল কালাম বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে এমপি রবির মত একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা নৌ-কমান্ডো-০০০১ এর বিরুদ্ধে। এ থেকে বোঝা যায় রাজাকারের ছেলে রাজাকারই হয়।

সে কৌশলে একজন মুক্তিযোদ্ধার মেয়েকে বিয়ে করে জাতে উঠতে চেয়েছিল কিন্তু পারেনি কারণ রক্ত কথা বলে। সাংবাদিকদের কাছে অনুরোধ আপনারা কারও স্বার্থের জন্য বলি হবেননা। আর যদি এমপি রবির বিরুদ্ধে কোন মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে সংবাদ পরিবেশন করা হয় তাহলে দোষীরা আর ছাড় পাবেনা।

এখন তো সাংবাদিকদের হাতে মার খেয়েছেন। এরপর সাতক্ষীরার আপামর জনগণ গণধোলাই দিয়ে পাগলা গাড়দে পাঠাবে। আপনারা জনগণের প্রতিপক্ষ নন। আপনারা দেশের স্বার্থে জনগণের স্বার্থে লেখনীর কলম চালান। অন্যের স্বার্থে নিজেদের মধ্যে মারামারি করে মহৎ পেশাকে কলঙ্কিত করবেন না।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, জেলা শ্রমিক লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল্লাহ সরদার, সহ-সভাপতি বিকাশ চন্দ্র দাস, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য মীর মহিতুল আলম, পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খন্দকার আরিফ হাসান প্রিন্স, আব্দুর রশিদ, সহ-দপ্তর সম্পাদক জিয়াউর বিন সেলিম যাদু, জেলা কৃষকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস.এম রেজাউল ইসলাম, জেলা তাঁতীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মীর আজহার আলী শাহীন, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. জোহর আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. রমজান আলী, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদিকা সুলেখা দাস, রোখসানা পারভীন, সাংগঠনিক সম্পাদক সোনিয়া পারভীন শাপলাসহ জেলা, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ এবং সাধারণ জনগণ উপস্থিত ছিলেন।

সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতি এপিপি এ্যাড. শেখ তামিম আহম্মেদ সোহাগ।

Comments

comments

Close