শনিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
খুলনা বিভাগ, প্রচ্ছদ, বিশেষ প্রতিবেদন শার্শায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ডাক্তার নুর মোহাম্মদ অবশেষে মারা গেছেন।

শার্শায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ডাক্তার নুর মোহাম্মদ অবশেষে মারা গেছেন।


পোস্ট করেছেন: বার্তা বিভাগ ২ | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ২২, ২০১৯ , ৭:০০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: খুলনা বিভাগ,প্রচ্ছদ,বিশেষ প্রতিবেদন


খোরশেদ আলম :

যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া বাজারে ট্রাক ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুতর আহত শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মোস্তফা নুর মোহাম্মদ (৫৫) মারা গেছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

অপরজন জুলফার ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি, রাসেদুজ্জামানের অবস্থার অবনতি হলে (৪৫) তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। তার অবস্থাও আশংকাজনক বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটার সময় যশোর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের, বাগআঁচড়া বাজারে মুড়ির মিলের সামনে। সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মোস্তফা নূর মোহাম্মদ (৫৫) ও জুলফার ফার্মাসিটিক্যালস কোম্পানি লিমিটেডের প্রতিনিধি, রাশেদুজ্জামান(৪৫) মোটরসাইকেল যোগে সাতক্ষীরা যাওয়ার পথে। বিপরীত দিক থেকে আসা যশোর মুখী একটি ট্রাক তাদের ধাক্কা দিলে দুজনই মারাত্মকভাবে আহত হন ।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের দুজনকে উদ্ধার করে, যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয় এবং আজ সকালে ডাক্তার মোস্তফা নুর মোহাম্মদ মারা যান । ডাক্তার নুর মোহাম্মদের মৃত্যুর খবরে চিকিৎসক মহলে ও ওষুধ কোম্পানির লোকজনের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।

প্রত্যক্ষদশীরা জানান, সাতক্ষীরা হাসপাতালে দায়িত্ব শেষে। প্রতি শুক্রুবার বাগআঁচড়া আখি টাওয়ারে এসে শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নুর মোহাম্মদ রোগী দেখতেন । প্রতিদিনের ন্যায় শুক্রবার তিনি রোগী দেখা শেষে  সাতক্ষীরায় ফিরে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে বাগআঁচড়া মুড়ির মিলের সামনে পৌঁছালে, যশোর গামী একটি ট্রাক (সাতক্ষীরা ট১১-০২৩৪) তাদের মোটরসাইকেল কে মুখোমুখি ধাক্কা দিলে। ডাক্তার মোস্তফা নুর মোহাম্মদ ও চালক রাশেদুজ্জান গুরুতর আহত হন। চিকিৎসারত অবস্থায় শনিবার সকালে সকলকে কাঁদিয়ে ডাক্তার নুর মোহাম্মদ চলে যান না ফেরার দেশে। এদিকে রাসেদুজ্জামানের অবস্থাও খুব একটা ভালো না বলে চিকিৎসকরা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

Comments

comments

Close