শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আজকের পত্রিকা, জীবন ধারা, ঢাকা বিভাগ, প্রচ্ছদ, মতামত আন্তর্জাতিক নির্যাতন বিরোধী দিবস উপলক্ষে মোহাম্মদপুরে  মানববন্ধন

আন্তর্জাতিক নির্যাতন বিরোধী দিবস উপলক্ষে মোহাম্মদপুরে  মানববন্ধন


পোস্ট করেছেন: বার্তা বিভাগ ২ | প্রকাশিত হয়েছে: জুন ২৭, ২০১৯ , ১:৫৩ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আজকের পত্রিকা,জীবন ধারা,ঢাকা বিভাগ,প্রচ্ছদ,মতামত


মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ

 জাতিসংঘ ঘোষিত নির্যাতন বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস আজ বুধবার। নির্যাতনের শিকার মানুষের পক্ষে জনমত গড়ে তোলার প্রয়াসে প্রতি বছর ২৬ জুন বিশ্বব্যাপী এ দিবসটি পালন করা হয়ে থাকে।

দিবসটি পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন মোহাম্মদপুর থানা শাখার পক্ষ থেকে আজ ২৬ জুন ২০১৯ রোজ বুধবার রাজধানী মোহাম্মদপুর বাসস্ট্যান্ডে সকাল ১০-১১টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচির পালন করেছে।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু কল্যান ট্রাষ্টের কর্মকর্তা সাবেক ছাত্র ও যুব নেতা কর্জনুর রহমান কার্জন, মানবাধিকার কমিশনের আঞ্চলিক নেতা মোঃ শামিম, মোহাম্মদপুর থানা ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দিল মোহাম্মদ দিলু, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন মোহাম্মদপুর থানার সভাপতি মোঃ ওয়ালিউল্লাহ মাষ্টার, সাধারণ সম্পাদক মোসাঃ লতিফা ইয়াসমিন লাভলী’সহ বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন মোহাম্মদপুর থানার নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন স্কুল, কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক,ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ ও সর্বস্তরের জনগণ।

বিশ্বব্যাপী নির্যাতন বন্ধে ১৯৯৭ সাল থেকে জাতিসংঘে  নির্যাতনবিরোধী দিবস পালনের প্রস্তাব গৃহীত হয়। জাতিসংঘের বক্তব্য অনুযায়ী আন্তর্জাতিক আইনের অধীনে নির্যাতন একটিঅপরাধ। কোনো পরিস্থিতিতেই এই নির্যাতনকে মেনে নেয়া যায় না।

বর্তমান বিশ্বে নানা কারণে মানুষ নির্যাতনের শিকার হচ্ছে। ধর্ম-বর্ণ, সংখ্যার বিচারে নির্যাতনের হার বেড়েই চলেছে। মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে সংঘাত, জঙ্গিদের হামলা, নিরীহফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের বর্বর হামলার ঘটনা প্রায়ই ঘটছে। আফগানিস্তান, সোমালিয়াসহ বিশ্বের অনেক দেশেই জঙ্গিদের কারণে নিরীহ মানুষের প্রাণ যাচ্ছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, মতপ্রকাশসহ নানা মৌলিক অধিকার থেকে মানুষকে বঞ্চিত হতে হচ্ছে।

মিয়ানমারে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গারা এখন বিশ্বের সবচেয়ে নির্যাতিত জাতিতে পরিণত হয়েছে। বৌদ্ধ সংখ্যাগুরু ও সরকারের পদ্ধতিগত নির্যাতনের কারণে এসব মানুষ মৌলিক অধিকারবঞ্চিত। প্রাণে বাঁচতে লাখ লাখ রোহিঙ্গা নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়ায় অসংখ্য গণকবরের সন্ধান মিলেছে। যেখানে বেশিরভাগই সংখ্যালঘুনিপীড়িত রোহিঙ্গার লাশ মিলেছে।

দিবসটি উপলক্ষে বক্তরা বলেন, বর্তমান সরকার দেশে শান্তিরক্ষা ও নির্যাতন প্রতিরোধে অঙ্গীকারাবদ্ধ। জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক নির্যাতনবিরোধী দিবসের প্রাক্কালে সকল ধরনের নির্যাতনবন্ধে বিশ্ববাসীকে আরো সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান।

বক্তরা আরো বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে  আবারও সরকার পরিচালনা করছে। সরকার নির্যাতন, নিপীড়ন, সন্ত্রাস নির্মূল করতে আইনের শাসনকেসমুন্নত রেখেছে। নতুন নতুন আইন প্রণয়ন করেছে। আইনের প্রয়োগ জোরদার করেছে। সরকার দেশে শান্তিরক্ষা ও নির্যাতন প্রতিরোধে অঙ্গীকারাবদ্ধ। শুধু রাষ্ট্রীয় নয় পারিবারিক, সামাজিকসহ সকল প্রকার নির্যাতন বন্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতে সকলকে আহ্বান জানান।

Comments

comments

Close