বুধবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ঢাকা বিভাগ, প্রচ্ছদ, শোক মোহাম্মদপুর ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

মোহাম্মদপুর ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ২৮, ২০১৯ , ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: ঢাকা বিভাগ,প্রচ্ছদ,শোক


মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালীর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২৭ আগস্ট ২০১৯ রোজ মঙ্গলবার দুপুর ১:৩০ মিঃ রাজধানী মোহাম্মদপুর ঐতিহাসিক টাউন হল চত্বরে ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

৩১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব দিল মোহাম্মাদ দিলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা মহানগর-উত্তর আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক, মোহাম্মদপুর, আদাবর ও শেরে-ই-বাংলা নগরের মাটি ও মানুষের নেতা ও মানুষ গড়ার কারিগর, ঢাকা-১৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ সাদেক খান, এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মহানগর-উত্তর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব শেখ বজলুর রহমান, মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি অধ্যক্ষ এম.এ.সাত্তার, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মতিউর রহমান মিয়া চাঁন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব ওয়ালিউল্লাহ মাষ্টার। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ আনসার আলী, সহ-সভাপতি মোঃ আলাউদ্দিন, সহ-সভাপতি, মোঃ নজরুল ইসলাম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল সিদ্দিক তুহিন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফকরুদ্দিন আহমেদ বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শাহাজান খান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য মোঃ এম. ওমর ফারুক, ঢাকা-উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর  হাবিবুর রহমান (মিজান), মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ খলিলুর রহমান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রোকসানা আলম’সহ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তরা বলেন, স্বাধীনতার স্থপতি, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৫ সালে সূর্য ওঠার আগে খুব ভোরে সেনাবাহিনীর কিছুসংখ্যক বিপথগামী সদস্য ধানমণ্ডির বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেন। ঘাতকরা সেই রাতে শুধু বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেনি, তাদের হাতে একে একে প্রাণ হারিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, বঙ্গবন্ধুর সন্তান শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশু শেখ রাসেলসহ পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজি জামাল।

পৃথিবীর এই জঘন্যতম হত্যাকাণ্ড থেকে বাঁচতে পারেননি বঙ্গবন্ধুর অনুজ শেখ নাসের, ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাত, তাঁর ছেলে আরিফ, মেয়ে বেবি ও সুকান্ত, বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে যুবনেতা শেখ ফজলুল হক মণি, তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মণি এবং আবদুল নাঈম খান রিন্টু ও কর্নেল জামিলসহ পরিবারের ১৬ জন সদস্য ও ঘনিষ্ঠজন।

বক্তরা আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাকী পলাতক হত্যাকারীদের বিদেশ থেকে ফিরিয়ে এনে বিচার করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানা।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে সর্ব সাধারণের মাঝে গণভোজের খাবার প্যাকেট বিতরণ করেন।

Comments

comments

Close