বুধবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চটগ্রাম বিভাগ, জাতীয়, প্রচ্ছদ চট্টগ্রাম মহানগরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ ৮ সেপ্টেম্বর থেকে

চট্টগ্রাম মহানগরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ ৮ সেপ্টেম্বর থেকে


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: আগস্ট ২৯, ২০১৯ , ৭:১৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: চটগ্রাম বিভাগ,জাতীয়,প্রচ্ছদ


এম. ইউছুফ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।

চট্টগ্রাম নগরে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) সকালে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে  উপস্থিত ছিলেন সিটি  মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, দেশের নাগরিক হিসেবে পরিচয় ও রাষ্ট্রীয় সুবিধা পেতে জাতীয় পরিচয়পত্র খুবই গুরুত্বপূর্ন। দেশে এ ব্যাপারে অনেকে সচেতন নন। যার ফলে জাতীয় পরিচয়পত্রে অনেক ভুলভ্রান্তি হচ্ছে,এতে অনেকেই ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে।একজন নাগরিক ভোগান্তি থেকে কীভাবে রেহাই পাবেন সেই জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে দায়িত্ব নিতে হবে। এক্ষেত্রে মাঠ পর্যায়ে কর্মীদের ভুমিকায় বেশী।
ভোটার তালিকা হালনাগাদে নগরে রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে ৮ সেপ্টেম্বর। ওইদিন বন্দর জোনে কার্যক্রম শুরু হবে। ইতোমধ্যে বন্দরে তথ্যসংগ্রহ চলছে। ৯ অক্টোবর শেষ হবে বন্দরে তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম।জেলা নির্বাচন অফিস তথ্য মতে,ডবলমুরিং ২১ সেপ্টেম্বর থেকে ২৭ অক্টোবর, পাঁচলাইশে ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১অক্টোবর, কোতোয়ালীতে ৫ অক্টোবর থেকে ১৮ নভেম্বর,চান্দগাঁও এ ৩০ অক্টোবর থেকে ১৭ নভেম্বর, পাহাড়তলীতে ৩ নভেম্বর থেকে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদে তথ্য সংগ্রহ ও রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চলবে।
সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান জানান, তথ্য সংগ্রহকারীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করবেন। তথ্য সংগ্রহের কাজ শেষ হলে ওয়ার্ডে স্থাপিত রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্রে চোখের আইরিশের প্রতিচ্ছবি ও দশ আঙুলের ছাপ নেওয়া হবে।
জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, তথ্য নেওয়ার তিন সপ্তাহ পর নির্দিষ্ট নিবন্ধন কেন্দ্রে গিয়ে সংশ্লিষ্টদের চোখের আইরিশের প্রতিচ্ছবি ও দশ আঙুলের ছাপ দিতে হবে। আর নিবন্ধন কেন্দ্র স্থাপন করা হবে প্রতিটি ওয়ার্ডে।প্রতি ২ হাজার নাগরিকের বিপরীতে একজন করে তথ্য সংগ্রহকারী নিয়োগ দেওয়া হবে। ৫ জন তথ্য সংগ্রহকারীর জন্য থাকবেন একজন সুপারভাইজার। প্রতি ৭০ জন নাগরিকের জন্য একজন করে ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নিয়োগ করা হবে। যারা ভোটারদের তথ্য সিস্টেমে অন্তর্ভুক্ত করবেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান, চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দোহা, সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মুনীর হোসাইন খান, থানা নির্বাচন কর্মকর্তা কামরুল আলম, পল্লবী চাকমা, মোহাম্মদ সাহিদ হোসেন, মোহাম্মদ শহিদুল আলম, জাকিয়া হোসনাইন, এমকে আহমদ প্রমুখ।

Comments

comments

Close