বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ঢাকা বিভাগ, প্রচ্ছদ, রাজনীতি কে হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি

কে হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সভাপতি


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯ , ৭:৫০ অপরাহ্ণ | বিভাগ: ঢাকা বিভাগ,প্রচ্ছদ,রাজনীতি


মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় কাউন্সিল আগামী ২১ ও ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। তার আগেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক জেলা / মহানগর / উপজেলা / থানা / পৌর / ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড-এর সকল মেয়াদ উত্তীর্ণ শাখা সমূহের সম্মেলন আগামী ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখের মধ্যে সম্পন্ন করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

বরাবরের মতো এবারও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে দলটির প্রথম শীর্ষ পদ সভাপতি কে হচ্ছেন তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা। এরই মধ্যে দলীয় নেতাদের নজর কাড়তে তোড়জোড় শুরু করেছেন অনেক নেতা। শেষ পর্যন্ত কার ভাগ্যে শিকে ছিঁড়বে তা একমাত্র আওয়ামী লীগ প্রধানের ওপরই নির্ভর করছে বলে একাধিক নীতিনির্ধারক নেতা দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকাকে জানিয়েছেন।

রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদ ঘিরেই নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের ভেতর থাকে মূল আগ্রহ। এবারের কাউন্সিলেও এর ব্যতিক্রম নয়। এ নিয়ে সব স্তরের নেতাকর্মীর মধ্যে চলছে সমীকরণ মেলানোর চেষ্টা। ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ার সর্বস্তরের জনগণের মুখে যাদের নাম শুনা যাচ্ছে দলের বর্তমান সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ এর ভাগিনা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদার, বর্তমান সাধাণ সম্পাদক মোঃ ওয়ালিউল্লাহ মাষ্টার, সাবেক সহ-সভাপতি রুস্তম আলী খাঁন’সহ প্রমুখ।

তবে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা দলের প্রয়োজনে রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ এর ভাগিনা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদার কে গুরুত্বপূর্ণ এ পদে বসাতে পারেন। এ ছাড়া ক্লিন ইমেজের কারণে দলে সমাদৃতও তিনি।

মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতা কর্মীরা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদার কে সভাপতি হিসেবে ভাবতে শুরু করেছেন। তারা মনে করেন, সভাপতি হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদারই যোগ্য। স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল রাখতে হলে অবশ্যই দক্ষ, সৎ ও আদর্শের প্রতীক, ত্যাগী ও কর্মীবান্ধব মুজিব সৈনিক, ন্যায়নীতি ও আদর্শবান ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন মানুষ হাস্যউজ্জল হাজার কর্মীর ভালবাসার একটি নাম ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ এর ভাগিনা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদার কে সহ-সভাপতি থেকে সভাপতি করার কোন বিকল্প নাই।

মোহাম্মদপুর থানার ৩১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ এর ভাগিনা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সাঈদ তালুকদার একুশের বাণী পত্রিকাকে জানান স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ এর ডাকে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলাম। তেমনিভাবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মানীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ গুরুত্বপূর্ণ পদটির দায়িত্ব যদি আমাকে তুলে দেন তাহলে আমি সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবো এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে দলকে তৃণমূল পর্যায়ে আরো সুসংগঠিত করবো।

Comments

comments

Close