মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, চটগ্রাম বিভাগ, প্রচ্ছদ চট্টগ্রামে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসীর হামলা

চট্টগ্রামে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসীর হামলা


পোস্ট করেছেন: উপ সম্পাদক | প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ১২, ২০১৯ , ৩:৫৭ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,চটগ্রাম বিভাগ,প্রচ্ছদ


দৈনিক আমাদের নতুন সময় পত্রিকার চট্টগ্রাম স্টাফ রিপোর্টার ওপপুলার২৪নিউজের জেলা প্রতিনিধি,মুজিব উল্ল্যাহ তুষারের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল এগারটার সময় বায়েজিদ তারা গেইট মুন্সীর হোটেলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। বাসা থেকে অফিসে যাওয়ার পথে চট্টগ্রাম পলিটেকনিক্যাল এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি ও মার্ডার মামলাসহ ৪ মামলার আসামী ওসমানের নেতৃত্বে ৪/৫ জন সশস্ত্র দুর্বৃত্ত মুজিবের উপর এলোপাথাড়ি হামলা চালায়। হামলায় মুজিবের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

আহত মুজিব বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সাংবাদিক তুষার জানান, সন্ত্রাসীরা (সি এন জি) যোগে এসে লাঠি, হকিস্টিক ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে এলোপাথাড়ি মারধর শুরু করে ওসমান ও তার সাঙ্গুপাঙ্গুরা, হামলার সময় পথচারীদের দেখে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় সাংবাদিক মুজিব উল্ল্যাহ তুষার সন্ত্রাসীদের নামে বায়েজিদ বোস্তামি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। জিডি নং ৫৩০।

এদিকে সাংবাদিক মুজিব উল্ল্যাহ তুষারের উপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংবাদিক সমাজ।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সাংবাদিক মুজিব উল্ল্যাহ তুষারের উপর হামলাকারী একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী, তার নামে বায়েজিদ থানায় ডাকাতি ও পাঁচলাইশ থানার মার্ডার মামলাসহ ৪টি মামলা রয়েছে। তার বাড়ী বাশঁখালী গন্ডামারা আলোচিত লেয়াকত চেয়ারম্যানের জেটাত ভাই বলে জানা যায়, সে এখন বায়েজিদ বেবি সুপার মার্কেটের পিছনে থাকে। ওসমান ৪টি মামলার আসামী হয়েও সাংবাদিকের উপর হামলা করে কি ভাবে? এমন এক প্রশ্নের জবাবে, বায়েজিদ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার বলেন, সে এক জন চিহ্নিত সন্ত্রাসী, তাকে আমরা দীর্ঘদিন ধরে খুজতেছি, সে গাঁ-ঢাকা দিয়েছিলো, তাকে হাতে নাতে ধরার জন্য আমাদের অফিসাররা মাঠে কাজ শুরু করেছেন।

এ ঘটনার ব্যাপারে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি। আর এ দিকে সন্ত্রাসী ওসমান ও তার গ্রুপের সদস্যদের দ্রুত সময়ে গ্রেফতার করা না হলে চট্টগ্রামের সাংবাদিক সমাজ আরো কঠোর থেকে কঠোরতর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

Comments

comments

Close