বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রংপুর বিভাগ সাঘাটায় চুরির অপবাদ সইতে না পেরে নাইট গার্ডের আত্মহত্যা!

সাঘাটায় চুরির অপবাদ সইতে না পেরে নাইট গার্ডের আত্মহত্যা!


পোস্ট করেছেন: রংপুর বিভাগীয় ব্যুরো চিফ , | প্রকাশিত হয়েছে: অক্টোবর ২৭, ২০১৯ , ৮:১৮ অপরাহ্ণ | বিভাগ: রংপুর বিভাগ


ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সাঘাটায় টেকনিকেল অ্যান্ড বিজেনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের ল্যাপটপ, কম্পিউটারসহ প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র চুরির ঘটনায় অধ্যক্ষের টাকার চাপে নাইটগার্ড ভাদু বিশ্বাস (৫০) আত্মহত্যা করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রোববার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার যাদুরতাইড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনের দাবি, অসুস্থতার কারণে গত শুক্রবার নাইট গার্ড ভাদু বিশ্বাস রাতে ডিউটি করতে পারেননি। সেই সুযোগে কলেজের ল্যাপটপ, কম্পিউটারসহ কিছু আসবাবপত্র চুরি হয়। এ ঘটনায় অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাঘাটা থানায় অভিযোগ জানান। এরপর শনিবার সকালে এসআই মোশারফ হোসেন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে থানায় নিয়ে যায়। বিকেলে অধ্যক্ষ ভাদু বিশ্বাসকে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসেন। পরে ঘুরিদহ ইউপির সাবেক মেম্বার মিন্টু মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে ভাদু বিশ্বাসের বাড়িতে যান এবং পরিবারের কাছে চুরি হওয়া জিনিসপত্র কেনার জন্য ৩ লাখ টাকা দাবি করে বলেন, রোববার সকালের মধ্যে না দিলে চুরির অপরাধে তাকে জেলে দেয়া হবে।

এদিকে ৩ লাখ টাকার বোঝা, আর চুরির অপবাদ সইতে না পেরে রোববার ভোর ৫টার দিকে নিজ ঘরের ধর্নার সঙ্গে রশিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে ভাদু বিশ্বাস।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজুর সঙ্গে আত্মহত্যায় প্ররোচণা দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সব অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন।

সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল হোসেন জানান, ভাদু বিশ্বাস রশিতে ঝুলে অত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পেয়েছি। শনিবার সাঘাটা টেকনিকেল অ্যান্ড বিজেনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ নওয়াব আলী সাজুর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছিল। পরে বিকেলে ছেড়ে দেয়া হয়।

Comments

comments

Close