বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রংপুর বিভাগ যৌতুক না দেওয়ায় ছেলে, শশুর, শাশুড়ী সহ আছিয়ার ওপর অমানুষিক নির্যাতন হাসপাতালে ভর্তী

যৌতুক না দেওয়ায় ছেলে, শশুর, শাশুড়ী সহ আছিয়ার ওপর অমানুষিক নির্যাতন হাসপাতালে ভর্তী


পোস্ট করেছেন: রংপুর বিভাগীয় ব্যুরো চিফ , | প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ১৩, ২০১৯ , ১১:০৪ অপরাহ্ণ | বিভাগ: রংপুর বিভাগ


ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর থানার ভাতগ্রাম ইউনিয়নের ভগমানপুর গ্রামের কৃষক কাচু মিয়ার মেয়ে আছিয়া বেগম, অসহায় নিরহ আছিয়া যৌতুক না দিতে পাড়ায় তার ওপর শশুর মইফুল ও শাশুড়ী রশিদা ও তার স্বামী রায়হান গ্রাম কৃষ্ণপুর,আছিয়া কে বেধরমারপিট করে বাসা থেকে বের করে দেয়। গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর থানায় মামলা দায়ের – মামলা নং- ১১/২৭২ জানা যায় – আছিয়া দীর্ঘদিন থেকে রায়হান সাথে সংসার করে আসছিলো – রায়হান মাঝে মাঝে আছিয়ার কাছে যৌতুক দাবী করতো, আছিয়ার বাবা কাচু মিয়া প্রায় ২,০০,০০০। দুই লক্ষ টাকা অনেক কষ্ট করে রায়হান কে দিয়েছে, তারপরও রায়হানের বাবা মা আছিয়ার কাছে প্রায় যৌতুক দাবি করতো, যৌতুক দিতে না পারলে তখন রায়হান ও তার বাবা-মা আছিয়া এর উপর নির্যাতন চালায় ১২-১০-২০১৯ ইং তারিখে আছিয়া কে রায়হান ও তার বাবা-মা মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়, তখন আছিয়া আহত অবস্থায় নিজের বাবার বাসায় চলে যায়।

০৫-১১- ২০১৯ইং তারিখে রায়হান আছিয়া কে মোবাইল ফোনে বাসায় আসতে বলে, আছিয়া রায়হানের কথা শুনে বাবার বাসা থেকে শশুর বাড়ীতে একা চলে যায়, শশুর বাড়ীতে আছিয়া যাওয়ার পর রায়হান ও আছিয়ার শশুর শাশুড়ী আছিয়া কে বলে, তুই তোর বাবার বাসা থেকে আরো দুই লক্ষ টাকা নিয়ে আয়, আছিয়া বলে আমার আব্বা তো কৃষক মানুষ এর আগে বহুবার অনেক কষ্ট করে অনকে টাকা দিয়েছে, এত টাকা কোথায় পাবে আমি আর টাকা দিতে পারবোনা।
যখন আছিয়া বলে টাকা দিতে পারবো, তখন রায়হান ও তার বাবা-মা আছিয়া কে বেধর মারপিট করে চুল ধরে টেনে হিচরে ঘড় থেকে বের করে দেয়,। আছিয়ার শশুর মইফুল বলে কত টাকা লাগবে তোকে তালাক দিতে তোর সাথে আমার ছেলে সংসার করবে না, তোর বাপকে বলিস আমার কিছুই করতে পারবে না, এভাবে আছিয়া কে তারা বেধর মারপিট করে, আছিয়া কে ঘড় থেকে টেনে হিঁচড়ে বের করে দেয়। আছিয়া আবার বাসায় যেতে চাইলে তাকে ফির চুল ধরে টেনে হিঁচড়ে রাস্তায় নিয়ে এসে ফেলে যায়।

এরপর এলাকার লোকজন আছিয়ার বাবা- কাচু মিয়া কে খবর দিলে তারা আছিয়া কে আহত অবস্থায় গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে নিয়ে যেয়ে ভর্তি করা হয়।

আহত অবস্থায় আছিয়া গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে ৬ দিন হলো ভর্তী রয়েছে। যৌতুকের জন্য আমার ওপর যারা নির্যাতন চালিয়েছে আমি তাদের বিচার চাই- যেনো আমার মত কোন মেয়েকে এভাবে নির্যাতন না চালাতে পারে।

Comments

comments

Close