সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চটগ্রাম বিভাগ, প্রচ্ছদ সন্দ্বীপে গনতান্ত্রিক সু-শাসনে জনসম্পৃক্ত অংশগ্রহন প্রকল্পের জনতার সংলাপ অনুষ্ঠিত

সন্দ্বীপে গনতান্ত্রিক সু-শাসনে জনসম্পৃক্ত অংশগ্রহন প্রকল্পের জনতার সংলাপ অনুষ্ঠিত


পোস্ট করেছেন: উপ সম্পাদক | প্রকাশিত হয়েছে: নভেম্বর ২৭, ২০১৯ , ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: চটগ্রাম বিভাগ,প্রচ্ছদ


বাদল রায় স্বাধীন
 
সন্দ্বীপে সরকারী নীতিমালা বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার ও প্রশাসনের সাথে জনতার সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে ২৬ নভেম্বর মঙ্গলবার।
 
সরকারী কর্মকর্তা, স্থানীয় সরকার, সিবিও, সিএসও এবং মিডিয়া কর্মীদের অংশগ্রহনে উপজেলা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংলাপে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা কর্মকর্তা বিদর্শী সম্বৌধী চাকমা।
 
জেলা নেটওয়ার্কিং কমিটির সাধারন সম্পাদক ইলিয়াস কামাল বাবুর সঞ্চালনায় শুরুতে স্বাগত বক্তব্য ও জনসম্পৃক্ত অংশ গ্রহন প্রকল্পের কার্যক্রম উপস্থাপন করেন রিকল প্রজেক্টের প্রকল্প সমন্বয়কারী অতুল কৃষ্ণ মজুমদার।
 
সভায় বিভিন্ন সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সদস্য ও সেবাগ্রহীতাদের মধ্যে নিজেদের সেবা সম্পর্কিত তথ্য প্রদান ও সেবাপ্রাপ্তির চিত্র উপস্থাপন করে বক্তব্য রাখেন আজিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ, সদস্য মোঃ কাসেম, আব্দুল বাতেন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান ফজলুল করিম বাবুল, দুর্নীতি দমন কমিশন সন্দ্বীপ উপজেলা সম্পাদক শাহ আকবর হেলাল , যুব উন্নয়ন অফিসের প্রতিনিধি আক্তার হোসেন,প্রানী সম্পদ অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শ্যামল চন্দ্র পোদ্দার, সিবিও সদস্য আক্তারা বেগম,খালেদা বেগম, তানভীর হোসেন প্রমুখ।
 
বক্তারা বিভিন্ন দপ্তরের লোকবল ঘাটতি, অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা সহ স্বাস্থ্য সেবায় কর্মরতদের কাজের অবহেলা, গাছুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবার মান ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোর অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার চিত্র তুলে ধরেন বিশেষ করে আজিমপুর ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ডাক্তারের বছর ধরে অনুপস্থিতি এবং ১০ শর্যা হাসপাতালে একজন মাত্র ডাক্তারের দুই ঘন্টা রুগী দেখা কোন নিয়মের মধ্যে পড়ে কিনা সে বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন এছাড়াও হারামিয়া ২০ শর্য্যা হাসপাতালের আন্তবিভাগ চালু না করার বিষয়টিও কেন হচ্ছেনা তা খতিয়ে দেখার জন্য নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে অনুরোধ জানান।
তারা আরাে বলেন যে বিভিন্ন সরকারী দপ্তরগুলোর সেবা সম্পর্কে সাধারন জনগন অবহিত নন বলে তারা সে সেবাগুলো গ্রহন থেকেও বঞ্চিত থাকছে তাই সাধারন জনগনকে সকল দপ্তর তাদের সেবা সম্পর্কিত সচেতনতা মুলক প্রোগ্রাম চালু করে সেবা সম্পর্কিত তথ্য প্রদানের ব্যবস্থা করা উচিত।

Comments

comments

Close