মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাজনীতি কে হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানা আ’লীগের পরবর্তী সভাপতি?

কে হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানা আ’লীগের পরবর্তী সভাপতি?


পোস্ট করেছেন: Ibrahim Hossain | প্রকাশিত হয়েছে: ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ , ১২:০০ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: রাজনীতি


মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকা মহানগর-উত্তর আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন শেষ না হতেই থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন হাওয়া লেগে গেছে সর্বত্র।চায়ের কাপে ঝড় তুলছে এ নিয়ে আলোচনা।কে হচ্ছেন মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের পরবর্তী সভাপতি-এ নিয়েই মূলত এখন নানামুখী আলোচনা দলে। বর্তমান সভাপতি অধ্যক্ষ এম এ সাত্তার দ্বিতীয়বারের মতো দায়িত্ব পাচ্ছে, নাকি এ পদে নতুন মুখ আসছে- এ আলোচনা এখন থানা থেকে ওয়ার্ড-ইউনিট নেতা-কর্মীদের মুখে মুখে। তবে কাউন্সিলের আগে আপাতত জানা যাচ্ছে না কে হচ্ছেন গুরুত্বপূর্ণ এ পদটির দাবিদার। কাউন্সিলে নেতা-কর্মীরাই নির্ধারণ করবেন আগামী দিনে কে হবেন লড়াই-সংগ্রামে দলটির সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ঢাকা মহানগর-উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সহযোদ্ধা।

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থার নিরিখেই গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পদে দীর্ঘদিনের দক্ষ, যোগ্য, ত্যাগী ও পরিশ্রমী নেতৃত্ব আনতে চান। তবে মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে বর্তমান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির কার্যনির্বাহী পরিষদের অন্যতম সদস্য মোঃ ওমর ফারুকের নাম ছাড়াও জোরালোভাবে শোনা যাচ্ছে মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. ফাহিম সাদেক খান, সহ-সভাপতি মোঃ আলাউদ্দিন এবং সহ-সভাপতি মোঃ আনসার আলী।

সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীর কাছে খোঁজ নিলে জাতীয় দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকাকে বলেন, বর্তমান সময়ের রাজনীতিতে এক আলোড়িত নাম মোঃ ওমর ফারুক। কর্মযজ্ঞ, মেধা আর নিজ যোগ্যতায় সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে তিনি জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়ন আর বঙ্গবন্ধু তণয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ’ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গঠনের নিবেদিত কর্মী মোঃ ওমর ফারুক।

শেখ হাসিনার বিশ্বজয়ী নেতৃত্ব ও সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরাসহ জনমত গঠনে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।তুখোড় বক্তা হিসাবে দেশ-বিদেশে তিনি বেশ জনপ্রিয়। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির কার্যনির্বাহী পরিষদের অন্যতম সদস্য হিসেবে এতটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন ফলে মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের ত্রি বার্ষিক সম্মেলন তিনি সভাপতি পদ পাবেন বলে আমরা আশাবাদী।

জাতীয় দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার সাথে সাক্ষাৎকারে মোঃ ওমর ফারুক তার শিক্ষাগত যোগ্যতা, পেশা, রাজনৈতিক পরিচিত, কারাবরণ এবং সামাজিক অবস্থান তুলে ধরেনঃ

শিক্ষাগত যোগ্যতা: এস,এস,সি, পাঁচচর উচ্চ বিদ্যালয়, শিবচর, মাদারীপুর, ১৯৭৪ইং। এইচ,এস,সি, বরহামগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ, শিবচর, মাদারীপুর, ১৯৭৬ইং। বি, এ, বরহামগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ, শিবচর, মাদারীপুর ১৯৮১ ইং। এম, এ, আনন্দমোহন কলেজ, ময়মনসিংহ, ২০০৯।

পেশা: প্রথম শ্রেণীর সরকারী ঠিকাদার, ডিসিসি। সরকার অনুমোদিত ভোগ্যপণ্য আমদানী কারক ও সরবরাহকারী।

রাজনৈতিক পরিচিত: সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, শিবচর বরহামগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ শাখা, ১৯৭৯ ইং। সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, শিবচর থানা শাখা, ১৯৭৯ইং। সাবেক নির্বাচিত ভি,পি, বরহামগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ ছাত্র সংসদ, শিবচর, মাদারীপুর। নির্বাচন ২২ মে ১৯৮০ ইং (ফারুক-ফিরোজ পরিষদ)।

বর্তমানর রাজনৈতিক পরিচিত: সাবেক সভাপতি, ২৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, মোহাম্মদপুর থানা, ঢাকা মহানগর উত্তর (২০০৪ ইং থেকে ২০১৬ ইং পর্যন্ত)।

কারাবরণ: ১৯৯৬ইং সনে স্বৈরাচার উৎখাত আন্দোলনে ১২ ফেব্রুয়ারী ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে রাজপথ আসাদগেট থেকে গ্রেফতার, ডিটেনশন অসংখ্য মামলা প্রদান। ৩ মাস কারাবরণ (ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার)। তৎকালীণ বিরোধী দলীয় নেত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা আমার বর্তমান ঠিকানার বাড়ীতে আসেন এবং পরিবার পরিজন কে সান্তনা দেন। তৎকালীন গণবিরোধী সরকারের পতনের পরে জেল থেকে মুক্তিলাভ। ১৯৭৮ইং সনে বরহামগঞ্জ কলেজ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠাকালে গ্রেফতার ও কারাবরণ মাদারীপুর কারাগার।

সামাজিক অবস্থান: (১) সাধারণ সম্পাদক, বায়তুস সালাহ জামে মসজিদ ও মাদ্রাসা কমপ্লেক্স, ২৯ নং ওয়ার্ড মোহাম্মদপুর থানা, ঢাকা, (২)সভাপতি, পুলিশিং কমিটি, ২৯ নং ওয়ার্ড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭,(৩) সম্পাদক, জনতা বহুামূখী সমবায় সমিতি লিঃ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-    ১২০৭, (৪) এম. ডি, জনতা আবাসিক সঞ্চয়ী প্রকল্প, মোহাম্মদপুর, ঢাকা, (৫) সহ সভাপতিঃ ঢাকা প্রেসিডেন্সি হাই স্কুল, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-     ১২০৭ এবং (৬) উপদেষ্টা, কির্ন্টারগার্ডেন স্কুল এন্ড কলেজ, মোহাম্মদপুর, আদাবর, শেরে-বাংলা নগর থানা।

জাতীয় দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার সাক্ষাৎকারে মোঃ ওমর ফারুক আরো বলেন, আমি যদি মোহাম্মদপুর থানার আওয়ামী লীগের সভাপতি হতে পারি তাহলে নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালন করে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়ন করে মাদক, সন্ত্রাস, দূর্নীতি বন্ধ করে সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফুটাব এবং সাধারণ মানুষের পাশে থেকে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বীশেষে সকল মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করবো।

মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের বাকী সভাপতি পদ প্রার্থীদের পরবর্তী সাক্ষাৎকার জানতে জাতীয় দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার সাথেই থাকুন।

Comments

comments

Close