রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অপরাধ, প্রচ্ছদ, প্রশাসন, বিভাগীয় সংবাদ, স্বাস্থ্য নবীগঞ্জে চেয়ারম্যান কর্তৃক ৫ সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত: ধিক্কার বিএমএসএফ

নবীগঞ্জে চেয়ারম্যান কর্তৃক ৫ সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত: ধিক্কার বিএমএসএফ


পোস্ট করেছেন: নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ১, ২০২০ , ৯:৫৮ অপরাহ্ণ | বিভাগ: অপরাধ,প্রচ্ছদ,প্রশাসন,বিভাগীয় সংবাদ,স্বাস্থ্য


বিএমএসএফ প্রতিনিধি ঃ

নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে সরকারী ত্রাণ বিতরনে অনিয়মের সংবাদ প্রচার করায় সন্ত্রাসী নিয়ে সাংবাদিক শাহ সুলতান আহমেদকে ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন ও তার লোকজন। এ ঘটনায় ৫ সাংবাদিক আহত হয়েছেন। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম সাংবাদিক হামলার ঘটনায় ধিক্কার জানানো হয়। ঘটনাটি তদন্তে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি করা হয়েছে। এসময় তাকে বাচাতে গিয়ে হামলার শিকার হন সাংবাদিক এম মুজিবুর রহমান ও বুলবুল আহমেদ। বুধবার বিকেলে আউশকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আউশকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনের নেতৃত্বে অস্ত্র-শস্ত্র সহকারে একদল সন্ত্রাসী দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের প্রতিনিধি ও নবীগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের সাবেক সভাপতি শাহ সুলতান আহমেদ উপর এ হামলা চালায়। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনও ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে সাংবাদিককে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেন। এসময় তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে সাংবাদিক মুজিবুর রহমান, সাংবাদিক বুলবুল আহমেদসহ আরো ৫ জন আহত হন।

স্থানীয়রা জানান, সম্প্রতি সরকারী ত্রাণ বিতরন করেন ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন। কিন্তু ১০ কেজি চাল দেয়ার কথা থাকলেও তিনি দেন ৫ কেজি করে দেন। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘আসুন অসহায় দিনমজুরদের মনের কথা শুনি’ শিরোনামে এক লাইভে সাধারণ মানুষের বক্তব্য সহ অনিয়মের বিষয়টি তুলে ধরেন সাংবাদিক সুলতান। এরপর ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী নিয়ে অস্ত্র সহকারে আউশকান্দি বাজারে শাহ সুলতান আহমেদের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

এসময় ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুনও ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন সুলতানকে। এ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করতে গেয়ে দৈনিক আমার সংবাদের প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান, চ্যানলে এস এর প্রতিনিধি বুলবুল আহমেদসহ অরো ৫ জন আহত হয়েছেন। স্থানীয় লোকজন শাহ সুলতানকে উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এখনও আহত সাংবাদিক সুলতানের জ্ঞান ফেরেনি।

Comments

comments

Close