বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আজকের পত্রিকা, জীবন ধারা, ঢাকা বিভাগ, প্রচ্ছদ, প্রথম পাতা দুর্যোগ ও শান্তিতে আকরাম হোসেন বাদশা সবার আগে!

দুর্যোগ ও শান্তিতে আকরাম হোসেন বাদশা সবার আগে!


পোস্ট করেছেন: ক্রাইম রিপোর্টার, মোঃ রমজান আলী রুবেল | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ৪, ২০২০ , ৫:৪৯ অপরাহ্ণ | বিভাগ: আজকের পত্রিকা,জীবন ধারা,ঢাকা বিভাগ,প্রচ্ছদ,প্রথম পাতা


রিপোর্টার রমজান আলী রুবেলঃ  “মানুষ মানুষেরই জন্য জীবন জীবনের জন্য” ভূপেন হাজারিকার সেই কালজয়ী গানটিই যেন আকরাম হোসেন বাদশা বাস্তবে প্রয়োগ করছেন।শান্তিতে এবং দেশের সকল প্রাকৃতিক দূর্যোগ ও দুঃসময়ে বরাবরই জনাব আকরাম হোসেন বাদশা বিপন্ন মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন আপনজনের মত, এ দেশের মানুষই যেন তার অবিচ্ছেদ্য অংশ।

মানুষের জন্য মানবতা, মানবতার জন্যই মানুষ, এ কথা বিশ্বাস করে অসহায় এবং বঞ্চিত মানুষের উপকারে নিজেকে আত্মনিবেদন করা এবং অন্যকে এতে উৎসাহিত করার মধ্যেই জীবনের সম্পূর্ণতা আর তৃপ্তি লোকায়িত আছে বিশ্বাস করেন অনেকে তাদেরই একজন আকরাম হোসেন বাদশা। আর্তমানবতার সেবায় গরীব অসহায় মানুষেরই একজন ভাবেন নিজেকে।সবার আগে মানুষের কল্যানে পাশে দাড়ান সবার আগে। উদার ভাবে প্রতিবারই দারিয়েছেন তাদের কাতারে কখনো শীতার্তদের শীত বস্র নিয়ে, কখনো শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ নিয়ে, আবার কখনো বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ নিয়ে।

২৮ মার্চ শনিবার বেরিয়ে পরেন আর্তমানবতার সেবায়
বিশ্বব্যাপী করোনা সংক্রমণের প্রভাবে বাংলাদেশে সরকারের সতর্কতায় দেশ পরিনত হয় অঘোষিত লকডাউনে আর তাতে কর্মহীন হয়ে পরে অনেকে ফলস্বরূপ বন্দ হয়ে যায় অনেক পরিবারের রান্না বান্না! আর তখনই জনাব আকরাম হোসেন বাদশা এগিয়ে আসেন সবার আগে। করেন ৩০০ পরিবারকে সহায়তা।তিনি নিজেই করেন সহায়তা কখনো কারো সহায়তা গ্রহন করেননি। এমনি সরকারী বেসরকারি সহায়তার আগেই সম্প্রসারণ করেছেন তার সহায়তার হাত। আর এভাবেই সচল রেখেছেন মানবতার পাল্কি!

জনাব আকরাম হোসেন বাদশা পেশায় একজন মৎস্য ব্যবসায়ি চার ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি দ্বিতীয় বড় ভাই আমেরিকা প্রবাসী। তিনিও দির্ঘদিন ছিলেন আমেরিকায় তার ছোট ভাই গাজীপুর ৩ আসনের সাংসদ এবং সবার ছোট ভাট একজন বিশিস্ট ব্যবসায়ি।কিনি গর্ব করেন একজন কৃষকের সন্তান পরিচয়ে পছন্দ করেন নিজেকে খামারী ভাবতে।

এবিষয়ে জনাব আক্রাম হোসেন বাদশা বলেন আমরা বঙ্গবন্ধুর কল্যানে পেয়েছি মহান স্বাধীনতা আর তাই উনার নিকট আমরা চিরকৃতজ্ঞ । তবে এ পৃথিবীর মধ্যে সব চাইতে বড় আদালত মানুষের বিবেক।অনেক বছর বাঁচলেই কেবল বড় মানুষ হওয়া যায় না।একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলে যদি একটি প্রাণ বাঁচে; একজন মানুষ বাঁচার স্বপ্ন দেখে—তাতেই হয়তো বাস্তবায়ন হবে বঙ্গবন্ধুর সোনা দেশ পাওয়া যাবে জীবনের সার্থকতা তার সাথে তৃপ্তি ।

Comments

comments

Close