রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ ও শিল্প, চিত্র বিচিত্র, ঢাকা বিভাগ, প্রচ্ছদ, স্বাস্থ্য গাসিকের মেয়র আলহাজ্ব এ্যাড মোঃ জাহাঙ্গীর আলম রেশন কার্ডের তালিকা পরিদর্শন করেন

গাসিকের মেয়র আলহাজ্ব এ্যাড মোঃ জাহাঙ্গীর আলম রেশন কার্ডের তালিকা পরিদর্শন করেন


পোস্ট করেছেন: বার্তা বিভাগ ৪ | প্রকাশিত হয়েছে: মে ৬, ২০২০ , ১:১৯ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: অর্থ ও শিল্প,চিত্র বিচিত্র,ঢাকা বিভাগ,প্রচ্ছদ,স্বাস্থ্য


গাজীপুর প্রতিনিধি ঃ

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী নিম্নবিত্তদের তালিকা প্রণয়ন করছেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব এ্যাডঃ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল সোমবার সিটি করপোরেশনের আঞ্চলিক অফিসে তালিকা প্রণয়নের কাজ পরিদর্শন করেন তিনি।

মেয়র জানান, পর্যায়ক্রমে দুই কোটি মানুষকে অর্থ সহায়তা দেবে সরকার। প্রত্যেক নাগরিকের মোবাইল অ্যাকাউন্টে মাসিক অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে। প্রাথমিকভাবে ৫০ লাখ নিম্নবিত্ত মানুষের তালিকা প্রণয়ন করা হচ্ছে। এই ধারাবাহিকতায় নিম্নবিত্ত নাগরিকদের তালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু করেছে গাজীপুর সিটি করপোরেশন। প্রকৃত দরিদ্র ব্যক্তিদের এই তালিকা অন্তর্ভূক্ত করতে প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাদের আহ্বান জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের মেয়র।

সে লক্ষ্যে দিন-রাত পরিশ্রম করে তালিকা তৈরির বিষয়টি তদারকি করছেন মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল সোমবার সিটি করপোরেশন এলাকার গাছা আঞ্চলিক অফিসে কাউন্সিলর, রাজনীতিবিদ, সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা এবং করোনা মোকাবিলায় গঠিত কমিটির সদস্যদের নিয়ে সভা করেছেন তিনি।

এ সময় মেয়র বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশের সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে নিয়ে ভাবেন। তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে এ দেশের কোন মানুষ অভূক্ত থাকবে না। পর্যাক্রমে দুই কোটি মানুষকে নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রাথমিকভাবে সারাদেশের ৫০ হাজার নিম্নবিত্ত মানুষকে এই সহায়তার আওতায় আনা হবে।’তিনি আরো বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন এলাকায় বসবাসরত নিম্ন আয়ের মানুষদের তালিকা প্রণয়নের কাজ শুরু হয়েছে। প্রকৃত দরিদ্র মানুষ যেনো এই তালিকায় আসে, সে ব্যাপারে লক্ষ্য রাখতে আমি সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশ দিয়েছি।’

প্রসঙ্গত করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অন্যান্য জনপ্রতিনিধি নিয়ে যখন নানা সমালোচনা হচ্ছে, ঠিক এই সময়ে সৃজনশীল নানা কাজ করে শুরু থেকেই দেশবাসীর প্রশংসা কুড়াতে সক্ষম হয়েছিলেন গাজীপুরের মেয়র। নিজের অর্থ খরচ করে বিদেশ থেকে মাস্ক, থার্মোমিটার, ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রীসহ অন্যান্য উপকরণ এনে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এসব উপকরণ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে।

এছাড়া চিকিৎসকদের থাকার জন্য আবাসিক রির্সোটের ব্যবস্থা করেছেন, এছাড়া দরিদ্র ও তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠী এবং ভাসমান মানুষদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছেন।

Comments

comments

Close